Breaking News

আজ মহা অষ্টমী ; এবার অনুষ্ঠিত হচ্ছে কুমারী পূজা

শারদীয় দুর্গাপূজার আজ চলছে মহাষ্টমী। ঢাকঢোল আর উলুধ্বনিতে মণ্ডপগুলো মুখরিত হয়ে উঠেছে ভক্তদের আনাগোনায়। ভক্তদের প্রার্থনা দেবীর আশীর্বাদে আবারও শান্তি ফিরে আসবে পৃথিবীতে।

সোমবার (৩ অক্টোবর) সকাল থেকে সব পূজামণ্ডপে শুরু হয়েছে মহাষ্টমী। তবে দুর্গাপূজার একটি আকর্ষনীয় অধ্যায় হচ্ছে কুমারী পূজা। যেখানে একজন কুমারী শিশু নারী দেবী রূপে পুজা করা হয়। ঢাকার রামকৃষ্ণ মিশনে হয়ে থাকে এই কুমারী পূজা।

আজ কুমারী পুজা
মেরুতন্ত্রে বলা আছে, সর্বকামনা সিদ্ধির জন্য ব্রাহ্মণ কন্যা, যশোলাভের জন্য ক্ষত্রিয় কন্যা, ধনলাভের জন্য বৈশ্য কন্যা ও পুত্রলাভের জন্য শূদ্রকুল জাত কন্যা কুমারী পূজার জন্য যোগ্য। গুণ ও কর্ম অনুসারেই এই জাতি বা বর্ণ নির্ধারিত হয়। সে জন্যই প্রচলিত শাস্ত্র অনুসারে, বিভিন্ন মিশন ও মন্দিরগুলোতে সর্বমঙ্গলের জন্য ব্রাহ্মণ কন্যাকেই দেবীজ্ঞানে পূজা করা হয়। সব নারীর মধ্যেই বিরাজিত রয়েছে দেবীশক্তি। তবে কুমারী রূপেই মা দুর্গা বিশেষভাবে প্রকটিত হয়েছিলেন। তাই কুমারী রূপে নারীকে দেবীজ্ঞানে সম্মান জানানোর একটি হচ্ছে ‘কুমারী পূজা’। ১৯০১ সালে স্বামী বিবেকানন্দ শুরু করেছিলেন বেলুড়মঠের দুর্গাপুজো। সেই বছরই কুমারী পুজোর প্রচলন করেছিলেন তিনি।
আজ কুমারী পুজা
কিন্তু মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে এর আগে হয় নি কুমারী পূজা। এ জন্য রাজধানীর ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দির, রামকৃষ্ণ মিশনসহ কোনো মন্দিরেই কুমারী পূজার আয়োজন করা হয়নি।
এবার অষ্টমীর মূল আকর্ষণ কুমারী পূজা অনুষ্ঠিত হবে। রাতে হবে সন্ধি পূজা। অষ্টমী ও নবমী তিথির সন্ধিক্ষণে এই সন্ধিপূজা অনুষ্ঠিত হয়।

About admin

Check Also

বাংলাদেশ ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সবার নিরাপদ আবাসভূমি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দুর্গাপূজা শুধু হিন্দু সম্প্রদায়ের উৎসবই নয়, এটি এখন সার্বজনীন উৎসব। শারদীয় …